1. admin@notunkurisylhet.com : notun :
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৭:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বাহুবলে করাঙ্গী নদীর বাঁধ ভেঙে এলাকা প্লাবিত।। পানিবন্দি বাসিন্দারা বাহুবলে বিজয়ী হবার পরই কৃতজ্ঞতা জানাতে লোকালয়ে ঘুরছেন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান বাহুবলে জমি সংক্রান্ত বিরোধ দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫ তীর বৃদ্ধ গুরুত্বর অবস্থায় দু’জনকে সিলেট প্রেরণ বাহুবলে ফ্রিপ প্রকল্পের কৃষক গ্রুপের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের মৃত্যু হবিগঞ্জে ছাড়তে হচ্ছে না ৩ উপজেলা চেয়ারম্যান এর চেয়ার বাহুবলে জামানত হারিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান খলিলসহ ৯ প্রার্থী বাহুবলে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের ১ বছরের কারাদণ্ড, আটক ২ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের প্রতি পুলিশ সুপারের হুশিয়ারী বানিয়াচংয়ে সংঘর্ষে নিহত ৩! আহত শতাধিক

বানিয়াচং সুফিয়া মতিন মহিলা কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের নিকট অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ

আতিকুর রহমান রুমন
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৩৩ বার পঠিত

আকিকুর রহমান রুমনঃ হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বানিয়াচং উপজেলার সুফিয়া মতিন মহিলা কলেজে অধ্যক্ষ সুলতান আহমেদ ভূইয়ার বিরোদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে শিক্ষার্থীরা স্ব-শরীর হাজির হয়ে অভিযোগ জানান।

 

ওই অধ্যক্ষ অতিরিক্ত ক্লাসের জন্য ১ হাজার টাকা করে অর্থ আদায়ের জন্য পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র আটক করে দেন।এই বিষয়টি মানতে না পেরে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ জানান।

 

এ ব্যাপারে বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও প্রতিষ্টানটির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদ্মাসন সিংহ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মৌখিক অভিযোগ পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে তাদের হাতে প্রবেশপত্র তুলে দেওয়ার জন্য অধ্যক্ষকে নির্দেশ প্রদান করেন।

 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশ পেয়েও অধ্যক্ষ পরীক্ষার্থীদের হাতে প্রবেশপত্র তুলে দেন নাই।সূত্রে জানা যায়, আগামী ৬ নভেম্বর এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্টিত হইবে। বানিয়াচং উপজেলার সুফিয়া মতিন মহিলা কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করবেন ৩শ ৩৩জন শিক্ষার্থী।

 

৬ নভেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহনকারী শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসের বেতন পর্যন্ত আদায় করা হয়েছে।

 

অথচ আগস্ট মাস থেকে নিয়মিত ক্লাস বন্ধ রয়েছে।কলেজ থেকে কোচিংয়ের জন্য ১ হাজার করে টাকা ধার্য্য করা হলেও কোন অতিরিক্ত ক্লাস না করালেও প্রবেশপত্র আনার জন্য কলেজে উপস্থিত হয়ে পরীক্ষার্থীরা জানতে পারেন অতিরিক্ত ক্লাসের জন্য অতিরিক্তভাবে ১ হাজার করে টাকা দিতে হবে।

 

যারা অতিরিক্ত ১ হাজার টাকা না দিতে পারবে তারা প্রবেশপত্র পাবেন না বলে অধ্যক্ষ সুলতান আহমে ভূইয়া নির্দেশ প্রদান করেছেন। ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হিসেবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে অবহিত না করেই অধ্যক্ষ এরকম সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলেও জানা যায়।

 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শিক্ষার্থী জানান,আমাদের পরিবারে ঠিকমত খাবারই পায়না পরিবারের লোকজন।

 

অতিরিক্ত ১ হাজার টাকা আমি কিভাবে দিব আমার জানা নাই। অন্য আরেক শিক্ষার্থী জানান,আমাদের কোচিং বাধ্যমূলক না। এছাড়াও আমাদের পরীক্ষা আরও আগেই হওয়ার কথা ছিল। তবুও আমরা ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত বেতন দিয়েছি। আমাদের ক্লাস বন্ধ রয়েছে আগস্ট মাস থেকে।আমাদেরকে কোন রকম অতিরিক্ত ক্লাস করানো হয় নাই।

 

এ ব্যাপারে সুফিয়া মতিন মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সুলতান আহমেদ ভূইয়ার সাথে মুঠোফোনে য়োগাযোগ করার জন্য বারাবর ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নাই।

এ ব্যাপরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদ্মাসন সিংহ বলেন,এই বিষয়টি পরীক্ষাথীরা আমাকে জানিয়েছেন।

 

পরে আমি অধ্যক্ষকে কোন টাকা ছাড়াই প্রবেশপত্র দেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছি।

 

এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2024
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It Hosting