1. admin@notunkurisylhet.com : notun :
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৭:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বাহুবলে করাঙ্গী নদীর বাঁধ ভেঙে এলাকা প্লাবিত।। পানিবন্দি বাসিন্দারা বাহুবলে বিজয়ী হবার পরই কৃতজ্ঞতা জানাতে লোকালয়ে ঘুরছেন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান বাহুবলে জমি সংক্রান্ত বিরোধ দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫ তীর বৃদ্ধ গুরুত্বর অবস্থায় দু’জনকে সিলেট প্রেরণ বাহুবলে ফ্রিপ প্রকল্পের কৃষক গ্রুপের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের মৃত্যু হবিগঞ্জে ছাড়তে হচ্ছে না ৩ উপজেলা চেয়ারম্যান এর চেয়ার বাহুবলে জামানত হারিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান খলিলসহ ৯ প্রার্থী বাহুবলে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের ১ বছরের কারাদণ্ড, আটক ২ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের প্রতি পুলিশ সুপারের হুশিয়ারী বানিয়াচংয়ে সংঘর্ষে নিহত ৩! আহত শতাধিক

পুলিশ নিহতের ঘটনায় আলহামদুলিল্লাহ কমেন্ট করায় মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেফতার

Reporter Name
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১১৩ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলায় ট্রেনের সঙ্গে গাড়ির ধাক্কায় তিন পুলিশ সদস্য নিহত হন। এমন একটি মর্মান্তিক ঘটনার সংবাদপত্রের ফেসবুক পেজের কমেন্ট সেকশনে ‘আলহামদুলিল্লাহ’ লেখায় একজনকে গ্রেফতার করেছে অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) সাইবার পুলিশ সেন্টার (সিপিসি)। গ্রেফতার ব্যক্তির নাম মো. আবদুল্লাহ। তিনি একজন মাদরাসার শিক্ষক।

বৃহস্পতিবার (৩১ আগস্ট) সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। অভিযুক্ত আব্দুল্লাহর বাড়ি সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায়।

শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) সিআইডির সাইবার ইন্টেলিজেন্স অ্যান্ড রিস্ক ম্যানেজমেন্ট ইউনিটের বিশেষ পুলিশ সুপার মো. রেজাউল মাসুদ জাগো নিউজকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, গ্রেফতার আবদুল্লাহর কমেন্টের ওপর বহু লোক আলহামদুলিল্লাহ কমেন্ট করতে থাকে। অনলাইন নিউজ এবং সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া এ কমেন্ট সর্বত্র ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ সদস্যদের মধ্যে ব্যাপক অসন্তোষ দেখা দেয়। ফলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতির উপক্রম হয়।

তিনি আরও বলেন, ঘটনার স্বীকারোক্তি দিয়েছেন তিনি। আব্দুল্লাহ কওমি এবং হেফাজত ইসলামপন্থি একটি মাদরাসার শিক্ষক ও স্থানীয় একটি মসজিদের ইমাম।

সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মো. রেজাউল মাসুদ বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৩১ ধারা অনুযায়ী, যদি কোনো ব্যক্তি অনলাইনে এমন কিছু প্রকাশ বা সম্প্রচার করেন, যা সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন শ্রেণি বা সম্প্রদায়ের মধ্যে শত্রুতা, ঘৃণা বা বিদ্বেষ সৃষ্টি করে বা অস্থিরতা বা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে অথবা আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটায় তাহলে ওই ব্যক্তির এ অপরাধে ৭ বছর কারাদণ্ড বা অনধিক ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। বর্তমানে সাইবার নিরাপত্তা ২০২৩ আইনেও এ ধারাটি কার্যকর রয়েছে, তবে সাজা দুবছর কমিয়ে ৫ বছর করা হয়েছে।

এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2024
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It Hosting