1. admin@notunkurisylhet.com : notun :
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাহুবলে বিজয়ী হবার পরই কৃতজ্ঞতা জানাতে লোকালয়ে ঘুরছেন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান বাহুবলে জমি সংক্রান্ত বিরোধ দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫ তীর বৃদ্ধ গুরুত্বর অবস্থায় দু’জনকে সিলেট প্রেরণ বাহুবলে ফ্রিপ প্রকল্পের কৃষক গ্রুপের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের মৃত্যু হবিগঞ্জে ছাড়তে হচ্ছে না ৩ উপজেলা চেয়ারম্যান এর চেয়ার বাহুবলে জামানত হারিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান খলিলসহ ৯ প্রার্থী বাহুবলে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের ১ বছরের কারাদণ্ড, আটক ২ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের প্রতি পুলিশ সুপারের হুশিয়ারী বানিয়াচংয়ে সংঘর্ষে নিহত ৩! আহত শতাধিক বাহুবলে ভাইয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে বোনের মুত্যু

মোরলগঞ্জে সন্ত্রাসীদের আঘাতে গর্ভবতী মহিলা শিশুসহ আহত -৭ জন হাসপাতালে

বাগেরহাট প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১০ মার্চ, ২০২৩
  • ১৫১ বার পঠিত

বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে জিউধরা ইউনিয়নের পশ্চিম  জিউধরা গ্রামে বুধবার রাতে পূর্ব  শত্রুতার জের ধরে সুলতান শেখের বসতঘরে ঢুকে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটসহ ঘরে থাকা মহিলাদের মারধর করে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়।  এতে গর্ভবতী মহিলা ও শিশু  সহ একই পরিবারের  কয়েকজন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন ফরিদা (৩০),  রহিমা (৪০),  কুরছিয়া (৩০), সোলায়মান (৩৫) একাৃনি (১৭),  শারমিন (১৬),  বৃষ্টি (১৮)  সহ ঘরে থাকা আরও ৩-৪ জন।   গুরুতর আহত অবস্থায় ৫ মাসের গর্ভবতী কুরছিয়াকে  খুলনা সদর হাসপাতালে  ভর্তি করা হয়েছে।  এমন অভিযোগ  করেছেন ভুক্তভোগী ওই  পরিবার।

 

 

জানা গেছে, ৮ মার্চ বুধবার ভোর ৫ টার দিকে  অসুস্থ  অবস্থায় সুলতান শেখ মারা গেলে খবর পেয়ে  চট্টগ্রামে  থাকা তার একমাত্র  ছেলে  সোলায়মান (৩৫) তার স্ত্রী ও ৩ সন্তানকে নিয়ে ৪ টার দিকে বাড়ি  ফিরেন। তার ৬ বোন ও তাদের স্বামী- সন্তানেরাও আসেন। সন্ধ্যার দিকে  বাবা সুলতান শেখকে দাফন করার পর একমাত্র ছেলে সোলায়মান  ঘরে ফেরেন শোকাহত ও বিমর্ষ অবস্থায়।  শোক সন্তপ্ত পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের অবস্থাও ছিল অনুরুপ।

 

 

এখনো বাবার লাশের খাটিয়াটাও ফেরত দেওয়া হয়নি, পড়ে আছে উঠানে। সন্ধ্যা গড়িয়ে ৭ টা বাজতে না বাজতেই হঠাৎই  গরীব এই পরিবারের ওপর নেমে আসে অন্য এক মহাবিপদ। পূ্র্ব শত্রুতার জের ধরে দুরাত্নীয় পার্শ্ববর্তী  বারইখালী ইউনিয়নের  গোয়ালবাড়িয়া গ্রামের আবু হাওলাদারের ছেলে আসলাম ও আসলামের মামা আবু বকর হাওলাদার আরও ৫-৬ জন সন্ত্রাসীকে সঙ্গে  নিয়ে ঘরের মধ্যে  অতর্কিত  হামলা করে। এ ব্যাপারে  আহত ফরিদা বেগম জানায়,  তার বাবার লাশ দাফন করে ঘরে আসতে না আসতেই আসলাম ও তার মামা আবু বকর আরও ৪-৫ জন সন্ত্রাসী  নিয়ে এসে প্রথমে আমার ভাই সোলায়মান কে এবং পরে আমরা বাঁধা দিলে আমাদের ৭ মহিলা ও শিশুকে  তারা বেধরক মারধর করে।এদিকে, অভিযুক্ত  আবু বকর মুঠোফোনে জানায়, প্রায় ১০ বছর পূর্বে  মৃত সুলতান শেখের ছেলে সোলায়মানের কাছে  ৩ লাখ টাকা আমাদের পাওনা। সেই টাকা নিয়ে সে ঘুরাতে থাকে এবং  তালবাহানা করে এবং পালিয়ে বেড়ায়।  তার বাবার মৃত্যু খবর পেয়ে সে বাড়ি এসেছে এবং  আবার সে পালিয়ে যেতে পারে বিধায় ওইদিন  পুলিশ নিয়ে আমরা ওই বাড়িতে যাই।

 

 

পরে তাদের সঙ্গে  হাতাহাতির  সৃষ্টি  হয় এবং পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে    পরিস্থিতি  নিয়ন্ত্রণে  নেন। কর্তব্যরত  পুলিশ  এসআই  জহির  জানান, আমাদেরকে ভুল তথ্য দিয়ে সেখানে নেয়া  হয়।  পরে সেখানে উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি  হলে সেটি যে কোনভাবে নিয়ন্ত্রণে  আনতে সক্ষম  হই।

 

 

মোরেলগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সাইদুর রহমান জানান, অভিযোগকারী পাওনাদার আসলাম বহুদিনের পাওনা টাকার জন্য থানায় একটি অভিযোগ করলে বিষয়টি  দেখার জন্য এসআই জহিরকে বলা হয়। ওইবাড়িতে ওইদিন কেউ  মারা গেছে, এ তথ্যটি আমাদের কাছে গোপন করা হয়।

 

এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2024
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It Hosting