1. admin@notunkurisylhet.com : notun :
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০২:১২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাহুবলে বিজয়ী হবার পরই কৃতজ্ঞতা জানাতে লোকালয়ে ঘুরছেন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান বাহুবলে জমি সংক্রান্ত বিরোধ দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫ তীর বৃদ্ধ গুরুত্বর অবস্থায় দু’জনকে সিলেট প্রেরণ বাহুবলে ফ্রিপ প্রকল্পের কৃষক গ্রুপের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের মৃত্যু হবিগঞ্জে ছাড়তে হচ্ছে না ৩ উপজেলা চেয়ারম্যান এর চেয়ার বাহুবলে জামানত হারিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান খলিলসহ ৯ প্রার্থী বাহুবলে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের ১ বছরের কারাদণ্ড, আটক ২ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের প্রতি পুলিশ সুপারের হুশিয়ারী বানিয়াচংয়ে সংঘর্ষে নিহত ৩! আহত শতাধিক বাহুবলে ভাইয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে বোনের মুত্যু

ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে কবরস্থান ও সরকারি রাস্তা দখলের অভিযোগ

আমির হোসেন সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৬ মার্চ, ২০২৩
  • ১৯১ বার পঠিত

আমির হোসেন,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলায় গ্রামের কবরস্থানের জায়গা ও গ্রামবাসীর চলাচলের গোপাট (রাস্তা) লাঠিয়াল বাহিনী দ্বারা জোরপূর্বক দখল করে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের মন্দিয়াতা গ্রামে। এদিকে সমাজের লোকজন কবরস্থান ও মানুষের চলাচলের রাস্তা জোরপূর্বক দখল করে মাটি কেটে ভরাট করতে বাঁধা দিলে তাদেরকেও মারধরের হুমকির অভিযোগ ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়া ও তার লাঠিয়াল বাহিনী বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত সাজিনুর মিয়া উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড সদস্য। ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়া ও তার লাঠিয়াল বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে স্থানীয় এলাকাবাসী।

 

পরে গত (২৬ ফেব্রুয়ারী) মোঃ আব্দুল কাদির নামের স্থানীয় এক ব্যাক্তি ওই ইউপি সদস্য সাজিনুর সহ  আরও ৩/৪ গংগের নামে তাহিরপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। স্থানীয় লোকজন গণস্বাক্ষর দিয়েছে ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়ার বিরুদ্ধে।

 

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, সাজিনুর মিয়া ইউ/পি সদস্য হওয়ার পর তার নিজেস্ব লাঠিয়াল বাহীনি দ্বারা বিভিন্ন লোকজনের ভোগ দখলিয় সরকারি খাস ভূমি জোর পূর্বক দখল করা তার নিত্যদিনের ঘটনা। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সকালে ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়া তার লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে তাহিরপুর উপজেলাধীন মন্দিয়াতা মৌজায় সরকারি কবরস্থান ও চলাচালের গোপাট দখল করে সরকারি কাজে ব্যবহৃত এক্সক্যাভেটর দ্বারা মাটি কাটিয়া কবরস্থান ও গোপাট ভরাট করিয়া তাহার দখলে নেওয়ার চেষ্টা করছেন (তাহিরপুর উপজেলাধীন মৌজাঃ-মন্দিয়াতা, জেএল নং- আরএস ০৫, খতিয়ান নং- আরএস ০১ দাগ নং- আরএস ৩৪৫ ও ৩৪৪ পরিমান ১.৫০ শতাংশ কবরস্থান ও গোপার্ট)। এসময় স্থানীয় এলাকাবাসী দেখতে পেয়ে সাজিনুর ও তার সাথে থাকা লোকজনকে বাঁধা নিষেধ প্রদান করে। এসময় ইউপি সদস্য সাজিনুর ও তার লাঠিয়াল বাহিনী সরকারি কবরস্থান ও পোপাট তাহার বলিয়া দাবি করে। এবং স্থানীয় গ্রামবাসীদের উপর ক্ষেপে গিয়ে বিভিন্ন হুমকি ধামকি দেয়। পরে আব্দুল কাদির নামের এক ব্যাক্তি প্রতিবাদ করিলে এসময় সাজিনুর মিয়া ও আব্দুল কাদিরের মধ্যে কথা কাটাকাটি একপর্যায়ে ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়া ও তার লাঠিয়াল বাহিনী আব্দুল কাদিরকে মারধর করে। পরে নিরুপায় হয়ে মারধরের শিকার আব্দুল কাদির গত (২৬ ফেব্রুয়ারী) সাজিনুর মিয়া সহ  আরও ৩/৪ গংগের নামে তাহিরপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)  বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

 

অভিযোগে আরও জানাযায়, শুধু কবরস্থান আর গোপটেই নয়! ইতিপূর্বেও ইউপি সদস্য সাজিনুর মিয়া তাহিরপুর উপজেলাধীন কিসমত মন্দিয়াতা মৌজায় কয়েকজন হতদরিদ্র কৃষকের ভোগ দখলিয় ভূমি হইতে উচ্ছেদ করিয়া মাটি ভরাট করিয়া ১১টি প্লট তৈরী করিয়া ১১টি প্লট প্রায় ১৫,০০,০০০/- (পনের লক্ষ) টাকায় বিক্রয় করিয়া টাকা আত্মসাত করে।

 

এ বিষয়ে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন বলেন,  আমরা মেম্বার সাজিনুরের লাঠিয়াল বাহিনীর কাছে অসহায়। সে এলাকায় কবরস্থান ও সরকারি রাস্তাসহ সব সরকারি জায়গায় জোরপূর্বক দখল করে ভরাট করে নিজের দখলে নিয়েছে, আবার কোন জায়গায় পুকুর করে মাছ চাষ করে ভোগদখল করছে। সে সরকারি লোক সার্ভেয়ার, তহসিলদার এমন কি ইউএনও স্যারের নির্দেশও মানেনা।

 

স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল হক বলেন, আমাদের কবরস্থান ও মানুষের চলাচলের গোপাট (রাস্তা) সাজিনুর মেম্বার তার লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে জোরপূর্বক দখল করে ভোগদখল করছে। গ্রামবাসী বাঁধনিষেধ করলে আমাদের মারপিট করে। পরে আমরা উপজেলা প্রশাসনকে জানালে সার্ভেয়ার তহসিলদার এসে মাইপা (মেপে) কবরস্থান ও রাস্তায় লাল নিশানা টানিয়ে দিয়ে যায়। তার যাওয়ার পরেই সাজিনুর ও তার লাঠিয়াল বাহিনী নিশানা উড়িয়ে ফেলে দিয়ে আবার দখল করে।  সে সরকারের নিষেধাজ্ঞাও মানেনা। এখন এই বিচার আল্লার কাছে দিছি। এখন আল্লায় যদি বিচার করে।

 

এ বিষয়ে অভিযুক্ত সাজিনুর মিয়া তার উপর সকল অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে বলেন, আমি আমার রের্কডের জায়গায় পুকুর করেছি। কোন সরকারি কবরস্থান বা রাস্তা দখল করেনি। এটা তহসিলদার নিজেই আমাকে মেফে দিয়ে গেছে। অভিযোগকারী আব্দুল কাদিরের বিরুদ্ধে আমি অভিযোগ করার পর সে আমার বিরুদ্ধে এখন এই মিথ্যা অভিযোগ করেছে।  আব্দুল কাদির নিজেই সরকারের অনেক খাস জায়গা জোরপূর্বক দখল করে খাচ্ছে।

 

এ বিষয়ে তাহিরপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আআসাদুজ্জামান রনি বলেন,  অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে সত্যতা পাওয়া গেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2024
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It Hosting