1. admin@notunkurisylhet.com : notun :
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাহুবলে বিজয়ী হবার পরই কৃতজ্ঞতা জানাতে লোকালয়ে ঘুরছেন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান বাহুবলে জমি সংক্রান্ত বিরোধ দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫ তীর বৃদ্ধ গুরুত্বর অবস্থায় দু’জনকে সিলেট প্রেরণ বাহুবলে ফ্রিপ প্রকল্পের কৃষক গ্রুপের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের মৃত্যু হবিগঞ্জে ছাড়তে হচ্ছে না ৩ উপজেলা চেয়ারম্যান এর চেয়ার বাহুবলে জামানত হারিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান খলিলসহ ৯ প্রার্থী বাহুবলে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের ১ বছরের কারাদণ্ড, আটক ২ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের প্রতি পুলিশ সুপারের হুশিয়ারী বানিয়াচংয়ে সংঘর্ষে নিহত ৩! আহত শতাধিক বাহুবলে ভাইয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে বোনের মুত্যু

কলেজ ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় আচার বিক্রেতা গ্রেফতার

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ১৫৮ বার পঠিত

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জে ডোবা থেকে নবজাতকের মরদেহ উদ্ধারের পর কলেজছাত্রীর ধর্ষণ মামলায় আরমান লস্কর (২৫) নামে এক আচার বিক্রেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

 

মঙ্গলবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে তাকে শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভার উদয়ন আবাসিক এলাকায় তার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে শায়েস্তাগঞ্জ থানার একদল পুলিশ। বিকেলে তাকে হবিগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা। এর আগে গত সোমবার হবিগঞ্জ সদর উপজেলার আব্দাবকাই গ্রামে একটি ডোবা থেকে কলেজছাত্রীর নবজাতক সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশ।

 

 

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাজমুল হক কামাল এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘ধর্ষণের অভিযোগে মেয়েটির দায়ের করা মামলায় আরমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 

 

মেয়েটিকে পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসার জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে। নবজাতকের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনাস্থল যেহেতু হবিগঞ্জ সদর থানা এলাকায় তাই এ ঘটনায় হবিগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

 

 

মামলার বিবরণে জানা যায়, বানিয়াচং উপজেলার আমীর খানি গ্রামের শামীম লস্করের ছেলে আরমান লস্কর শায়েস্তাগঞ্জের দাউদনগর বাজারের আচার বিক্রি করতো।

 

 

শায়েস্তাগঞ্জ ডিগ্রী কলেজে একাদশ শ্রেণির সেই ছাত্রীর সঙ্গে তার দেড় বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তাদের মধ্যে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক হলে ওই কলেজছাত্রী অন্ত;সত্ত্বা হয়ে পড়েন।

 

 

বিষয়টি জানার পর থেকে আরমান মিয়া ওই কলেজ ছাত্রীর সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। একপর্যায়ে গতকাল (২০ ফেব্রুয়ারী) হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ফায়ার সার্ভিস এলাকায় ডাঃ মমতাজ বেগমের চেম্বারে সন্তান প্রসব করেন।

 

 

স্থানীয়রা জানান,সন্তান প্রসবের পর পিতার পরিচয় না পাওয়ায় ক্ষোভে এবং লোক লজ্জার ভয়ে সে ও তার মা নবজাতকটিকে সদর উপজেলার আব্দাখাই এলাকার একটি ডোবায় ফেলে যাচ্ছিলেন।

 

খবর পেয়ে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসলে নবজাতকটিকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

 

এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2024
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It Hosting