1. admin@notunkurisylhet.com : notun :
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৭:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বাহুবলে করাঙ্গী নদীর বাঁধ ভেঙে এলাকা প্লাবিত।। পানিবন্দি বাসিন্দারা বাহুবলে বিজয়ী হবার পরই কৃতজ্ঞতা জানাতে লোকালয়ে ঘুরছেন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান বাহুবলে জমি সংক্রান্ত বিরোধ দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫ তীর বৃদ্ধ গুরুত্বর অবস্থায় দু’জনকে সিলেট প্রেরণ বাহুবলে ফ্রিপ প্রকল্পের কৃষক গ্রুপের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের মৃত্যু হবিগঞ্জে ছাড়তে হচ্ছে না ৩ উপজেলা চেয়ারম্যান এর চেয়ার বাহুবলে জামানত হারিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান খলিলসহ ৯ প্রার্থী বাহুবলে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের ১ বছরের কারাদণ্ড, আটক ২ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের প্রতি পুলিশ সুপারের হুশিয়ারী বানিয়াচংয়ে সংঘর্ষে নিহত ৩! আহত শতাধিক

বানিয়াচংয়ে নকল কীটনাশক বিক্রয় করায় ব্যাবসায়ীকে ১লাখ টাকা জরিমানা ৩মাসের কারাদন্ড

আকিকুর রহমান রুমন
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ১৩২ বার পঠিত

আকিকুর রহমান রুমনঃ হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে নকল কীটনাশক বিক্রয় করায় এক ব্যাবসায়ীর নিকট থেকে অর্থ আদায় করে কারাদন্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

 

 

অভিযুক্ত ব্যাবসায়ী আনোয়ার মিয়ার অপরাধ প্রমানিত হওয়ায় নগদ থাকে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করে তা আদায় করা হয়।এছাড়াও তার এই অপরাধের জন্য এই ব্যাবসায়ীকে ৩ মাসের বিনাশ্রম করাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক।

 

 

সূত্রে জানাযায়,বুধবার(২২ ফেব্রুয়ারী)সকাল সাড়ে ১১টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে স্হানীয়(গ্যানিংগন্জ) নতুনবাজারে ভোক্তা অধিকার আইনে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার পদ্মাসন সিংহ।

 

 

এলাকাবাসীর অভিযোগের ভিত্তিতে ঐ ব্যাবসায়ীর দোকানে অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন কীটনাশকের কোম্পানীর মোড়কে নকল কীটনাশক বিক্রয়ের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। তাৎক্ষণিক এই ব্যাবসায়ীকে ভ্রাম্যমান আদালত এই দন্ডাদেশ প্রদান করেন।

 

 

এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতকে সহযোগীতা করেন বানিয়াচং থানার এএস আই মহসিনসহ একদল পুলিশ।এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বানিয়াচং উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা রাতুল সেন,সার্টিফাইড পেশকার ইমতিয়াজ আহমেদ।এ ব্যাপারে বানিয়াচং উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃএনামূল হক জানান,আমরা কৃষকদের নিকট থেকে এমন অভিযোগ পেয়ে আসছিলাম এসব কীটনাশকে কৃষকের জমিতে কোন কাজ করছেনা।

 

 

এতে কৃষকগণ ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছিলেন। তাই আমাদের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা অনুসন্ধান করে ওই ব্যাবসায়ীকে সনাক্ত করেন। পরে এই বিষয়টি আমরা ইউএনও মহোদয়কে অবগত করি।

 

 

আর এরই ধারাবাহিকতায় আজ এই ব্যাবসায়ীকে দুই নাম্বারী ব্যাবসা করার বিষয়টি প্রমানিত হয়। আমি আশা করছি,এরপর এরকমভাবে কোন ব্যাবসায়ী সাধারণ কোন কৃষককের সাথে প্রতারণা করে ক্ষতিগ্রস্ত করবেন না।

 

এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2024
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It Hosting