1. admin@notunkurisylhet.com : notun :
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৬:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বাহুবলে করাঙ্গী নদীর বাঁধ ভেঙে এলাকা প্লাবিত।। পানিবন্দি বাসিন্দারা বাহুবলে বিজয়ী হবার পরই কৃতজ্ঞতা জানাতে লোকালয়ে ঘুরছেন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান বাহুবলে জমি সংক্রান্ত বিরোধ দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫ তীর বৃদ্ধ গুরুত্বর অবস্থায় দু’জনকে সিলেট প্রেরণ বাহুবলে ফ্রিপ প্রকল্পের কৃষক গ্রুপের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের মৃত্যু হবিগঞ্জে ছাড়তে হচ্ছে না ৩ উপজেলা চেয়ারম্যান এর চেয়ার বাহুবলে জামানত হারিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান খলিলসহ ৯ প্রার্থী বাহুবলে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের ১ বছরের কারাদণ্ড, আটক ২ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের প্রতি পুলিশ সুপারের হুশিয়ারী বানিয়াচংয়ে সংঘর্ষে নিহত ৩! আহত শতাধিক

লাখাইয়ে নবদম্পতি প্রেমিকজুটির ১২ দিনই শেষ বিদায়

লাখাই প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২১ নভেম্বর, ২০২২
  • ১০০ বার পঠিত

লাখাই প্রতিনিধিঃ  হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার স্বজনগ্রামে বিয়ের ১২ দিনের মাথায় প্রেমিক-প্রেমিকা আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল রোববার রাতে এ ঘটনাটি ঘটে। মৃতরা হলেন, লাখাই স্বজনগ্রামের আনছর মিয়ার মেয়ে তানিয়া (২২) এবং কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলার কুলাকান্দি গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমান হৃদয় (৩০)।

 

পুলিশ, স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মোবাইলে রং নম্বরে কলের সূত্র ধরে তানিয়ার সঙ্গে মোস্তাফিজুর রহমান হৃদয়ের পরিচয় হয়। অতঃপর প্রেম। একে অপরকে পেতে মরিয়া হয়ে ওঠেন তারা। অতঃপর গত ৯ নভেম্বর (বুধবার) কোর্ট ম্যারেজ করেন তারা।

 

এদিকে স্ত্রী ও সন্তান রেখে তানিয়াকে বিয়ে করেন হৃদয়। সে কথা গোপন রেখেছিলেন তানিয়ার কাছে। বিয়ের খবর জানাজানি হয়ে গেলে হৃদয় ও তানিয়ার মাঝেও অশান্তি সৃষ্টি হয়।

 

অন্যদিকে হৃদয়ের দ্বিতীয় বিয়ে মেনে নেননি তাঁর প্রথম স্ত্রী ও অভিভাবকেরা। এ অবস্থায় বিয়ের ১২ দিনের মাথায় ইঁদুর মারার ওষুধ ‘বুলেট’ খেয়ে আত্মহত্যা করেন এই নবদম্পতি।

 

তানিয়ার মা আবিদা বেগম বলেন, ‘বিয়ের পর থেকেই শ্বশুর বাড়িতেই থাকত হৃদয়। রোববার রাত ৭টার দিকে তানিয়া ও মোস্তাফিজ হঠাৎ ছটফট করতে থাকে। একপর্যায়ে তারা জানান গোপনে দুজনই ইঁদুর মারার বিষটোপ ‘বুলেট’ খেয়েছেন।

 

সংকটাপন্ন অবস্থায় দুজনকে লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁদের হবিগঞ্জে নেওয়ার পরামর্শ দেন। পথে সামান্য ব্যবধানে দুজনই মৃত্যুবরণ করেন।

 

হৃদয়ের মামাতো ভাই জুয়েল বলেন, প্রথম স্ত্রীর তিন ভরি স্বর্ণ লুকিয়ে এনে তানিয়াকে বিয়ে করে হৃদয়। আগের বিয়ে নিয়ে তাদের মধ্যে অশান্তি দেখা দিলে তারা বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করে বলে জানতে পেরেছি।

 

লাখাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুনু মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ হবিগঞ্জ সদরের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2024
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It Hosting