1. admin@notunkurisylhet.com : notun :
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৪:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাহুবলে বিজয়ী হবার পরই কৃতজ্ঞতা জানাতে লোকালয়ে ঘুরছেন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান বাহুবলে জমি সংক্রান্ত বিরোধ দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫ তীর বৃদ্ধ গুরুত্বর অবস্থায় দু’জনকে সিলেট প্রেরণ বাহুবলে ফ্রিপ প্রকল্পের কৃষক গ্রুপের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের মৃত্যু হবিগঞ্জে ছাড়তে হচ্ছে না ৩ উপজেলা চেয়ারম্যান এর চেয়ার বাহুবলে জামানত হারিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান খলিলসহ ৯ প্রার্থী বাহুবলে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের ১ বছরের কারাদণ্ড, আটক ২ দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের প্রতি পুলিশ সুপারের হুশিয়ারী বানিয়াচংয়ে সংঘর্ষে নিহত ৩! আহত শতাধিক বাহুবলে ভাইয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে বোনের মুত্যু

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাধবপুরে সংখ্যালঘুর জমি দখলের চেষ্টা

শেখ জাহান রনি মাধবপুর প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৯৩ বার পঠিত

শেখ জাহান রনি মাধবপুর প্রতিনিধি:আদালতের নির্দেশ অমান্য করে হবিগঞ্জের মাধবপুরে এক সংখ্যালঘু পরিবারের জমি দখলের চেষ্টা চালায় প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনায় হিন্দু সম্পদায়ের লোকজনের মাঝে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে ন্যায় বিচারের জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরছে সংখ্যালঘু পরিবারের সদস্যরা।

 

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের উত্তর বেজুড়া গ্রামের ধীরেন্দ্র চন্দ্র সরকারের একটি জমি ভুয়া দলিল সৃষ্টি করে জবর দখলের চেষ্টা করছে একই গ্রামের মৃত নায়েব আলীর ছেলে আলী আমজত খাঁ ওরপে শিশু মিয়া সহ তার লোকজন।

 

ধীরেন্দ্র চন্দ্র সরকারের ছেলে রূপংকর সরকার হবিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা হাকিম আদালতে ১৪৪ ধারা জারি করার জন্য একটি আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত বিষয়টি আমলে নিয়ে ওই স্থানে ১৪৪ ধারা জারি করেন।

 

কিন্তু আলী আমজত খাঁ ওরপে শিশু মিয়া ১৪৪ ধারা অমান্য করে ওই জায়গায় জোর পূর্বক প্রবেশ করে পুকুর ও ভিটা তৈরী করছেন।

 

রূপংকর সরকার জানান, ওই জায়গাটির মালিক  তার বাবা ধীরেন্দ্র চন্দ্র সরকার ও তার জেঠা জিতেন্দ্র সরকার । কিন্তু উত্তর বেজুড়া গ্রামের মৃত নায়েব আলীর ছেলে মোঃ আলী আমজত খাঁ ওরপে শিশু মিয়া কিছু ভুয়া কাগজ তৈরী করে দলিল সৃষ্টি করে।

 

এই বিষয়ে শিশু মিয়ার স্ত্রী মোছাঃ হামিদা খাতুন আদালতে একটি আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত আবেদন টি আমলে নিয়ে সরজমিন তদন্ত করার জন্য একটি কমিশন গঠন করেন।  ২০২২ সালের ১৫ জানুয়ারী কমিশন সরজমিন তদন্তে আসেন।

 

এই সময় বাদি মোছাঃ হামিদা খাতুন ও বিবাদী ধীরেন্দ্র চন্দ্র সরকার উপস্থিত ছিলেন। তারপরও আলী আমজত খা ওরপে শিশু মিয়া জায়গা জোর পূর্বক দখল করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচেছ। তার ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না।

 

মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক জানান, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2024
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: FT It Hosting